শাল্লায় ১০লক্ষ টাকার কারেন্ট জাল ধ্বংস, ৩জনের কারাদন্ড

ফখরুল ইসলাম:

সুনামগঞ্জের শাল্লায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের ৪র্থ দিনের কর্মসূচি হিসেবে ফরমালিন বিরোধী অভিযান ও মৎস্য বিষয়ক আইন বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এসময় প্রায় ১০লক্ষ টাকার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ করে আগুনে পুড়ানো হয়। সেইসাথে নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল বিক্রির অপরাধে ৩জনকে ১ বছর করে সশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করা হয়। তারা হলেন- সাতপাড়া বাজারের আমির হামজা ও উজ্জ্বল মিয়া এবং ঘুঙ্গিয়ারগাঁও বাজারের তৃশাণ দাস।
জানা যায়, জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে শনিবার (২০জুলাই) উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আল-মুক্তাদির হোসেনের নেতৃত্বে সারা উপজেলায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। মোবাইল কোর্ট অভিযানে উপজেলার বিভিন্ন বাজারের জাল ব্যবসায়ীদের কাছে থেকে মোট ৪শ’ ৭৬কেজি নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ করে পুড়িয়ে ফেলা হয়।
উপজেলার ৪নং শাল্লা ইউনিয়নের সাতপাড়া বাজারে অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল ব্যবসায়ী আমির হামজা ও উজ্জ্বল মিয়া উভয়কে ১বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়। ওইসময় তাদের দোকান থেকে ২৮১কেজি কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। তাছাড়া উপজেলা সদরের ঘুঙ্গিয়ারগাঁও বাজারে জাল ব্যবসায়ী তৃশাণ দাস ও গঙ্গা দাসের দোকানে অভিযান চালিয়ে ১৯৫কেজি কারেন্ট জাল জব্দ করা হয় এবং তৃশাণ দাসকে ১বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়। অভিযানের খবর পেয়ে জাল ব্যবসায়ী গঙ্গা দাস দোকান থেকে পালিয়ে যান।
অপরদিকে ১নং আটগাঁও ইউনিয়নের দাউদপুর বাজারে অভিযান পরিচালনা করে বাটকারায় অনিয়মের কারণে মাছ ব্যবসায়ী আল আমিন মিয়াকে ৫শ’ টাকা জরিমানা করা হয়।
মোবাইল কোর্ট পরিচালনা কালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আল-মুক্তাদির হোসেনের সাথে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ মামুনুর রহমান, শাল্লা থানার এসআই মোঃ আলমাছ মিয়া উপস্থিত ছিলেন।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আল-মুক্তাদির হোসেন বলেন যারা নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল বিক্রি করে তারা দেশের শত্রু, মাছের শত্রু এবং আমাদেরও শত্রু।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৬০০ বার