অসময়ের বৃষ্টি, সিলেটজুড়ে দুর্ভোগ

দিরাই শাল্লা ডেস্ক :: গতকালও আকাশ ছিলো অন্যরকম। ছিলো না বৃষ্টির কোন আভাস। তবে বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) থেকে সিলেটজুড়ে ঝিরি ঝিরি বৃষ্টি চলছে। আর এই অসময়ের বৃষ্টিতে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে নগরবাসীকে।

বৃষ্টির কারণে নগরের বিভিন্ন রাস্তায় যানজট সৃষ্টি হওয়ায় বাসায় ফিরতে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে চাকরিজীবী ও শিক্ষার্থীদের। তবে দিনের শেষে বৃষ্টিতে নেমে আসে শীতল ছোয়া। কমে আসে গরমের তীব্রতা।  এযেন শীতলতার আমেজ এক অন্য আমেজ।

সিলেট সরকারী কলেজের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী অনুরুদ্ধ দাশ অনিকের ভাষ্য; মনে হচ্ছে শীতে আগেই শীত পড়তে শুরু করেছে। আজ বৃষ্টির কারণে কিছুটা চলতে ফিরতে কষ্ট হচ্ছে তবে শীতলতার একটা আমেজ অনুভূত হচ্ছে।

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, গভীর সঞ্চারণশীল মেঘমালার কারণে সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। সাগরে সৃষ্টি হওয়া লঘুচাপটি আরও শক্তিশালী হয়ে পড়ায় এর প্রভাবে এখন দেশের বিভিন্নস্থানে বৃষ্টি শুরু হয়েছে।

এদিকে, কার্তিকের প্রথম বৃষ্টিতে সপ্তাহের শেষ কর্ম দিবসে কর্মমুখী মানুষজন পড়েছেন বিপাকে। সকালে অফিস যেতেই পড়তে হয়েছে দুর্ভোগে।

অতিরিক্ত ভাড়া, যানবাহনের স্বল্পতার কারণে অনেকেই সময় মতো অফিসে পৌঁছাতে পারেননি। অনেক অভিভাবক দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে সন্তানকে পাঠাননি স্কুলে।

মুহাম্মদ রুয়েল মিয়া। তিনি সিলেট নগরের আল-হামরা শপিং সেন্টারের ব্যাবসায়ী। তাঁর আজকে (বৃহস্পতিবার) সিলেটের বাইরে একটি বিয়েতে যাওয়অর জন্য প্রস্তুতি নিয়ে বাসা থেকে বের হয়েই বৃষ্টির কারণে পড়েতে হয়েছে দুর্ভোগে। তিনি জানালেন,‘সকালে বৃষ্টির কারণে প্রথম ভেবেছিলাম আজ বিয়েতেই যাব না। বৃষ্টি থাকায় অনেকসময় বাসায় বসে ছিলাম। পরে অনেক কষ্ট করেই বিয়ে যেতে হয়েছে।’

আনিসুল হক মুন নামে এক যুবক একটি বেসরকারী ব্যংকে চাকরী করেন। অসময়ের বৃষ্টির কারণে তিনিও আজ দেরিতে অফিসে যেতে হয়েছে। তিনি জানালেন, ‘সকালে ঘুম থেকে উঠেই যখন দেখলাম বৃষ্টি হচ্ছে তখনই ভাবছিলাম আজ অফিসে টিক মতো পৌঁছিতে পারব না। পরে আধাঘন্টা দেরি হলো।’ সুত্র- জাগো সিলেট

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮৭ বার